পৃষ্ঠাসমূহ

*এখন ঢাকায় তারিখ ও সময়*

বাংলা সংবাদপত্র

রবিবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৩

আপনার পিসি থেকে ২য় অপারেটিং সিস্টেম মুছে ফেলুন নিরাপদ উপায়ে

আমরা অনেক সময় আমাদের প্রয়োজনে অথবা শখ করে দুইটি অপারেটিং সিস্টেম একসাথে ইন্সটল করি। কিন্তু কখনো কখনো এটা বিরক্তির কারণ হয়ে দাড়ায়। তাই যেকোন একটি সিস্টেম মুছে
ফেলতে চাইলে আপনাকে আগে নিশ্চিত হতে হবে যে আপনি যেটি মুছতে চাইছেন সেটি কোন ড্রাইভে ইন্সটল করা আছে। আরো একটি ব্যাপারে লক্ষ্য রাখতে হবে সেটা হচ্ছে আপনি যেটি মুছতে চান সেটি যদি চালু থাকে তাহলে রিমুভ করা যাবে না। আসুন দেখে নিই কিভাবে অপ্রয়োজনীয় অপারেটিং সিস্টেম মুছে ফেলা যায়।

১. পিসি চালু হওয়ার সময় যে অপারেটিং সিস্টেমটি রাখতে চান সেটি দিয়ে রান করান

২. স্টার্ট মেন্যু থেকে Run কমান্ডে গিয়ে টাইপ করুন %windir% এবং Enter চাপুন।  এটি আপনার বর্তমান উইন্ডোজের অবস্থান দেখাবে। এটি মুছা যাবে না। ( Run খুঁজে না পেলে Search বক্সে টাইপ করুন উপরের দিকে চলে আসবে)
এবার নিশ্চয়ই বুঝে ফেলেছেন আপনার অপ্রয়োজনীয় অপারেটিং সিস্টেমের অবস্থান কোথায়। তাও যদি বুঝতে না পারেন তবে পিসি পূনরায় চালু করুন ২য় অপারেটিং সিস্টেম সিলেক্ট করে। আবার উপরের পদ্ধতি প্রয়োগ করে দেখে নিন এই উইন্ডোজটির অবস্থান। তবে এখন এটি মুছা যাবে না। আবার পিসি চালু করুন যে সিস্টেমটি রেখে দিতে চান সেটি দিয়ে।

৩. এবার যে উইন্ডোজ মুছে ফেলা প্রয়োজন সেটির উপরে মাউসের রাইট বাটন ক্লিক select the "Delete" option এবং Select "Yes" to delete the second operating system.

৪. হ্যাঁ, আপনি সফলভাবেই operating system ডিলিট করতে পেরেছেন। তবে আরেকটু কাজ বাকি সেটি হলো এখনো পিসি চালু হওয়ার সময় দুটি অপশনই দেখাবে সেখান থেকে ঝামেলা বিদায় করতে হবে।

স্টার্ট মেন্যু থেকে Run কমান্ডে গিয়ে টাইপ করুন msconfig এবং Enter চাপুন। System Configuration উইন্ডো চালু হবে।

৫. "Boot" tab এ ক্লিক করুন

৬. এখানে আপনি ইন্সটল operating systems এর তালিকা পাবেন path সহ। অপ্রয়োজনীয় operating systems সিলেক্ট করে "Delete" button চাপুন। select "Yes" to remove the operating system.

৭. "Apply" button এ ক্লিক করুন। এবার "OK" ক্লিক করুন to close the System Configuration window.
৮. কম্পিউটার  Restart করুন এবং দেখুন দ্বিতীয় operating system is removed.

কোন মন্তব্য নেই: